আজ , শনিবার, ২৫ জুন ২০২২

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ১০টি বিশেষ উদ্ভাবনী উদ্যোগ বিষয়ে প্রশিক্ষন কর্মশলা

লেখক : সাহেদুর রহমান মোরশেদ | প্রকাশ: ২০২২-০৬-১৭ ০০:৪৫:২০

শফিউল আলম, রাউজানবার্তাঃ

দেশের ব্যাপক উন্নয়ন কাজ হয়েছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রচেষ্টায় নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মা সেতু নির্মান করায় উত্তর বঙ্গের মানুষের জীবনমান উন্নয়ন হয়েছে। মানুষের গড় আয়ু পুর্বের থেকে বেড়েছে। দেশের ভুমিহীন দরিদ্র পরিবার আশ্রয়ন প্রকল্পের নির্মান করা ঘরে পরিবার পরিজন নিয়ে আশ্রয়ের ঠিকানা খুজেঁ পেয়েছে।

একটি বাড়ী একটি খামার পল্লী উন্নয়ন সঞ্চয় ব্যাংক প্রকল্পের আওতায় স্বল্প সুদে ঋন নিয়ে দরিদ্র পরিবারের সদস্যরা গবাদী পশু , হাসঁ ,মুরগী, পালন, পাটি তৈয়ারী, সেলাই কাজ, সিএনজি অটোরিক্সা, ব্যবসা করে স্বাবলম্বী হচ্ছে। মাতৃত্ব ভাতা মুক্তিযোদ্বা ভাতা, বয়স্ক ভাতা, স্মামী পরিত্যক্ত ভাতা, প্রতিবন্দ্বী ভাতা প্রদান করার মাধমে সামাজিক নিরাপত্তা ব্যবস্থা করা হয়েছে।

দেশের শিক্ষা প্রতিষ্টানের শিক্ষার্থীদের বিনামুলে বই বিতরন উপবৃত্তি দিয়ে শিক্ষার মান উন্নয়ন দরিদ্র পরিবারের ছেলে মেয়েদের সু শিক্ষায় শিক্ষিত করে তোলার মাধ্যমে শিক্ষিত জনগোষ্টি তৈয়ার করছে। তথ্য প্রযুক্তির ব্যবহারে ডিজিট্যাল বাংলাদেশ করা হয়েছে। শিল্প কারখানা, অর্থনৈতিক জোন, শিল্প নগর নির্মান করে বেকার দক্ষ যুবকদের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করা ও শিল্প কারখানা থেকে উৎপাদিত পণ্য রফতানী করে আয়ের ব্যবস্থা করা হয়েছে, সারা দেশে কমিনিউটি ক্লিনিক নির্মান করে দরিদ্র জনগোষ্টির স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করা হয়েছে।

দেশের ব্যাপক উন্নয়নের পাশপাশি রাউজানে ও ব্যাপক উন্নয়ন কাজ করা হয়েছে। রাউজানে ৫৬টি বেসকারীভাবে ৫শত ৬৮টি ঘর আশ্রযন প্রকল্পের আওতায় নির্মান করে ভুমিহীন পরিবারকে পুনঃবাসন করা হয়েছে। রাউজানে ৪৪টি কমিনিউটি সেন্টারে দরিদ্র জনগোষ্টির স্বাস্থ্য সেবা প্রদান করে আসছে। রাউজানের প্রতিটি ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ সংযোগ নিশ্চিত করা হয়েছে। প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনার মেধা ও দক্ষতায় সারা দেশে বিদ্যুৎ উৎপাদন বেড়েছে।

দেশ বর্তমানে মাধ্যম আয়ের দেশ হিসাবে পরিণত হয়েছে। আগামী ২০৪১ সালে বাংলাদেশ বিশ্বের মধ্যে উন্নত দেশ হিসাবে গড়ে উঠবে। দেশের ব্যাপক উন্নয়ন কাজের অগ্রযাত্রাকে এগিয়ে নিতে সকল ষড়যন্ত্রকে মোকাবেলা করে আবারো আওয়ামীলীগেকে ক্ষমতায় আনতে দেশের সাধারন মানুষের মধ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়ন কর্মকান্ড সম্পর্কে প্রচার ও প্রসার বৃদ্বি করতে হবে।

১৬জুন বৃহস্পতিবার সকাল থেকে সারাদিন রাউজান উপজেলা পরিষদ হলে প্রধানমন্ত্রী শেথ হাসিনার ১০টি বিশেষ উদ্ভাবনী উদ্যোগে বিষয়ে প্রশিক্ষন কর্মশলায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে রেলপথ মন্ত্রনালয় সর্ম্পকিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি এবি এম ফজলে করিম চৌধুরী এমপি একথা বলেন।

রাউজান উপজেলা নির্বাহী অফিসার আবদুস সামাদ শিকদারের সভাপতিত্বে অনুষ্টিত প্রধানমন্ত্রী শেথ হাসিনার ১০টি বিশেষ উদ্ভাবনী উদ্যোগে কিষয়ে প্রশিক্ষন কর্মশলায় প্রশিক্ষাথীদের উদ্যোশে ১০টি বিশেষ উদ্ভাবনী ও সরকারের ব্যাপক উন্নয়ন কর্মকান্ড তুলে ধরেন স্থানীয় সরকার বিভাগ চট্টগ্রাম এর উপপরিচালক বদিউল আলম।

প্রশিক্ষন কর্মশালায় আরো উপস্থিত ছিলেন, রাউজান উপজেলা চেয়ারম্যান এহেসানুল হায়দার বাবুল, রাউজান পৌরসভার মেয়র জমির উদ্দিন পারভেজ, রাউজান উপজেলা সহকারী কমিশনার ভুমি অতিশ দর্শী চাকমা, রাউজান উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ সভাপতি আনোয়ারুল ইসলাম, রাউজান থানার ওসি আবদুল্লাহ আল হারুন, রাউজান উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান নুর মোহাম্মদ। প্রশিক্ষন কর্মশালায় উপজেলা পর্যায়ের সরকারী প্রতিষ্টান, উপজেলা প্রশাসন, জনপ্রতিনিধি, স্থানীয় সুশীল সমাজ, ব্যবসায়ী, প্রেসক্লাব, এনজিও, রাজনৈতিক দল, বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন জনগোষ্টির ৫০ জন অংশ গ্রহন করেন।