আজ , মঙ্গলবার, ১৭ মে ২০২২

রাউজানে তিনশত লিটার মদ সহ ৪ মাদক ব্যবসায়ীসহ দশজনকে আদালতে সোর্পদ

লেখক : সাহেদুর রহমান মোরশেদ | প্রকাশ: ২০২২-০৫-০৩ ০২:০৪:১৩

শফিউল আলম, রাউজানবার্তাঃ

চট্টগ্রাম রাঙ্গামাটি মহাসড়কের পাশ থেকে প্রকাশ্য দিবালোকে গ্যাস লাইনের পাইপ লরিতে তুলে চুরি করে নেওয়ার সময়ে জনতা চোর সহ লরি আটক করে পুলিশের কাছে সোর্পদ করে। রাউজান পৌরসভার ৯নং ওয়ার্ডের পুয রাউজান এলাকায় বিসিক শিল্প নগরীতে গ্যাস সংযোগ দেওয়ার জন্য গ্যাস লাইন নির্মানের জন্য চট্টগ্রাম রাঙ্গামাটি মহাসড়কের পাশে রাউজান পৌরসভার ৯নং ওয়ার্ডের পশ্চিম রাউজান চারাবটতল বাজার এলাকায় স্তুপ করে রাখা হয় লোহর পাইপ। সড়কের পাশ থেকে গত ১ মে রবিবার সকালে চট্টগ্রাম শহর থেকে লরি ও ক্রেন ভাড়া করে এনে লোহার পাইপগুলো ক্রেনের সহায়তায় লরিতে তুলে চোরের দলের সদস্যরা।

এসময়ে চারবটতল বাজর এলাকার দারোয়ান আমির এ দৃশ্য দেখে প্রথমে গ্যাস লাইন নির্মান কাজের ঠিকাদার পাইপ তুলে নিয়ে যাচ্ছে বলে মনে করে। পরে দারোয়ান আমিরের মনে সন্দেহ হলে বাজারের পাশে বসবাসকারী রাউজান পৌরসভার ৯নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর জসিম উদ্দিন চৌধুরীর কাছে উপস্থিত হয়ে বিষয়টি জানান । পৌর কাউন্সিলর জসিম উদ্দিন চৌধুরী বিষয়টি ফোন করে গ্যাস লাইন নির্মানকারী ঠিকাদারকে জানালে ঠিকাদার লোহার পাইপ তুলে নেওয়া লোকজন তাদের লোকজন নয় বলে জানায় । রাউজান পৌরসভার কাউন্সিলর জসিম উদ্দিন চৌধুরী বলেন, ৫ চোর সহ লরি, ক্রেন আটক করে রাউজান থানার পুলিশকে ফোন করে জানানোর পর পুলিশ ঘটনাস্থলে আসলে আটক করা লরি, ক্রেন সহ ৬ চোরকে রাউজান থানা পুলিশের কাছে সোর্পদ করেন।

এঘটনান ব্যাপারে গ্যাস লাইন নির্মান কাজের ঠিকাদার জহির উদ্দিন মোহাম্মদ তৈমুর বাদী হয়ে আটক জয়নাল আবেদীন, রিফাত, শাব্বির, নাঈম উদ্দিন, এনামুল হক, মামুনুর রশিদ সহ অজ্ঞাতনামা ১২ জনকে আসামী করে রাউজান থানায় মামলা দায়ের করেন।

গ্যাস লাইন পাইপ চুরির ঘটনার সাথে জড়িতদের গতকাল ২ মে আদালতে সোর্পদ করেন রাউজান থানা পুলিশ । এ ব্যাপারে রাউজান থানার ওসি আবদুল্ল্যাহ আল হারুন বলেন, আটক চোরদের আদালতে সোর্পদ করা হয়েছে। গ্যাস লাইন নির্মান কাজের পাইপ চুরির কাজে ব্যবহৃত লরি, ক্রেন সহ চুরির কাজে ব্যবহৃত সরঞ্জাম জব্দ করা হয়েছে।

অপরদিকে রাউজান থানার ওসি আবদুল্লাহ আল হারুন ও রাউজান নোয়াপাড়া পুলিশ ফাড়ীর ইনচার্জ জয়নাল আবেদিনের নেতৃত্বে একদল পুলিশ চট্টগ্রাম কাপ্তাই সড়কের রাউজানের বাগোয়ান ইউনিয়নের গশ্চি ধরের টেক এলাকা থেকে সিএনজি অটোরিক্সা আটক করে সিএনজি অটো রিক্সা তল্লাসী করে ২শত ১০ লিটার পাহাড়ী চেলাই মদ উদ্বার করে। সিএনজি অটোরিক্সা থেকে মাদক ব্যবসায়ী আবুল মনসুর, আজগর আলীকে আটক করে। মাদক ভর্তি করে নেওয়া সিএনজি অটোরিক্সাটি আটক করে।গত রবিবার দিবাগত রাত সাড়ে এগারটায় এ অভিযান চালানো হয়। একই রাতেই চট্টগ্রাম কাপ্তাই মহাসড়কের পাহাড়তলী ইউনিয়নের ইমাম গাজ্জালী কলেজের সামনে দিয়ে সিএনজি অটোরিক্সা আটক করে। সিএনাজি অটোরিক্সা থেকে ৮০ লিটার পাহাড়ী চোলাই মদ উদ্বার করে। সিএনজি অটোরিক্সা থেকে ইউছুপ, আশিফুর রহমান নামের দু মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করে। সিএনজি অটোরিক্সাটি পুলিশের হেফাজতে রয়েছে।

রাউজান থানার সেকেন্ড অফিসার অজয় দেব শীল বলেন, পৃথক পৃথক অভিযানে আটক চার মাদক্ ব্যবসায়ীর বিরুদ্বে মাদক দ্রব্য আইনে মামলা রুজু করা হয়েছে। গতকাল ২ মে সোমবার দুপুরে ৪ মাদক ব্যবসায়ীকে আদালতে সোর্পদ করা হয়েছে।