আজ , মঙ্গলবার, ১৭ মে ২০২২

২৫ মার্চের গনহত্যা চালিয়ে বাঙ্গালী জাতিকে দমাতে চেয়েছিলেন পাক হানাদার বাহিনীর সদস্যারা- ফজলে করিম চৌধুরী এমপি

লেখক : সাহেদুর রহমান মোরশেদ | প্রকাশ: ২০২২-০৩-২৫ ১৮:৫৩:১৪

শফিউল আলম, রাউজানবার্তাঃ

জাতির জনক বঙ্গবন্দ্বু শেখ মুজিবুর রহমানের ডাকে সাড়া দিয়ে বাঙ্গালী জাতী যখন দেশকে পরাধিনতার হাত থেকে মুক্ত করতে ঐক্যবদ্ব হয়। ঐ সময়ে বাঙ্গালী জাতিকে দমাতে ২৫ মার্চ কালোরত্রিতে অপারেশন সার্চ লাইটের নাম দিয়ে ঘুমন্ত বাঙ্গালী জতির উপর হামলা করে পাকহানাদার বাহিনীর সদস্যরা। বাঙ্গালী জাতিকে তারপরও দমিয়ে রাখতে পারেনি তৎকালীন পাক সরকার।

২৫ মার্চ কালোরাত্রীতে গন্যহতা চালানোর পর বাংলার দামাল ছেলেরা দেশকে পরধিনতার হাত থেকে মুক্ত করতে আরো বেগমান হয়ে উঠে। বাংলার দামাল ছেলেরা মুক্তিযুদ্বে অংশ গ্রহন করে দীর্ঘ নয়মাস পাক হানাদার বাহিনী ও রাজাকার আলবদর বাহিনীর সাথে সশস্ত্র যুদ্ব করে জাতির জনক বঙ্গবন্দ্বু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্ন বাস্তবায়ন করে দেশকে পরাধিনতার হাত থেকে মুক্ত স্বাধীন সার্বভৈাম বাংলাদেশ প্রতিষ্টা করে বাংলাদেশকে বিশ্বে পরিচিত করে তুলেছে।

২৫ মার্চ শুক্রবার সকালে রাউজান উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে আয়োজিত ২৫ মার্চ কালোরাত্রীতে গন্যহত্যা দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভায় টেলিকনফারেন্সে প্রধান অতিথির বক্তব্যে রেলপথ মন্ত্রনালয় সর্ম্পকিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি এবি এম ফজলে করিম চৌধুরী এমপি একথা বলেন।

রাউজান উপজেলা পরিষদ হলে রাউজান উপজেলা নির্বাহী অফিসার জোনায়েদ কবির সোহাগের সভাপতিত্বে রাউজান উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা অফিসার নিক্সন চৌধুরীর সঞ্চলনায় অনুষ্টিত আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন রাউজান উপজেলা চেয়ারম্যান এহেসানুল হায়দার বাবুল, রাউজান পৌরসভার মেয়র জমির উদ্দিন পারভেজ, রাউজান উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ সভাপতি আনোয়ারুল ইসলাম, রাউজান থানার ওসি আবদুল্ল্যাহ আল হারুন, রাউজান উপজেলা মুক্তিযোদ্বা সংসদের কমান্ডার আবু জাফর চৌধুরী, রাউজান সরকারী কলেজের অধ্যক্ষ সেলিম নেওয়াজ চৌধুরী, রাউজান উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিসার নিয়াজ মোরশেদ প্রমুখ ।