আজ , রোববার, ২৭ নভেম্বর ২০২২

পরিবারের অভিযোগ হত্যাঃ রাউজানে হোমিও চিকিৎসকের মরদেহ উদ্ধার

লেখক : সাহেদুর রহমান মোরশেদ | প্রকাশ: ২০২২-০৩-২৩ ০০:২৭:৫৭

শফিউল আলম, রাউজানবার্তাঃ

চট্টগ্রামের রাউজানে ডা. শ্যামল ভট্টচার্য্য (৬০) নামে এক হোমিও চিকিৎসকের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

২২মার্চ মঙ্গলবার বিকেল ৫টার দিকে রাউজান থানা পুলিশ রাউজান পৌরসভার কাশেম সুলতানা ফ্রি হোমিও দাতব্য চিকিৎসালয় থেকে পুলিশ তার মরদেহ উদ্ধার করে। তিনি রাউজান পৌরসভার ৫নম্বর ওয়ার্ডের সুলতানপুর গ্রামের নন্দীপাড়া এলাকার দেবদর্শন ভট্টচার্য্যের ছেলে।

এর আগে দুপুরে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখে স্থানীয় কাউন্সিলর জানে আলম জনি পুলিশকে খবর দেন।

নিহতের স্ত্রী ইলা ভট্টচার্য্য অভিযোগ করে বলেন, ‘আমার স্বামীকে মেরে ফেলেছে, বিচারটা কিভাবে পাব? প্রধানমন্ত্রী বিচারটা কিভাবে পায়য়ে দিবে। দুইদিন আগে পুকুরের মাছ ও জাল দেওয়া নিয়ে প্রতিবেশীদের সঙ্গে কথাকাটাকাটি হয়েছিল। বাড়ি থেকে আমাদের তাড়িয়ে দেওয়ার জন্য এ কাজ করেছে। আমার মেয়ে চীন দেশে থাকে, প্রকৌশলী ছেলে ঢাকায় থাকে। আমার স্বামীকে মেরে ফেললে আমিও চলে যাব, ওরা ভোগ করবে।’

তিনি আরও বলেন, আমার স্বামী সকাল ৯টায় ঘর থেকে বের হয়েছিল। দুপুরে ফোনে না পেয়ে চিকিৎসালয়ের পাশে এক ব্যক্তিকে ফোন করে জানতে পারি তার মরদেহ ঝুলছে। আমি এসে দেখি আমার স্বামীর পা মাটির সঙ্গে লাগানো। এটা হত্যা উল্লেখ করে তার স্বামীর ব্যবহৃত একটি স্মার্টফোন পাওয়া যাচ্ছেনা বলে অভিযোগ করেন তিনি।

জানা যায়, চিকিৎসালয়ের দরজা খোলা অবস্থায় ঝুলন্ত মরদেহ দেখে স্থানীয়রা কাউন্সিলরকে ফোন করে জানান। পরে কাউন্সিলর থানায় ফোন করলে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে চিকিৎসকের মরদেহ উদ্ধার করেন।

রাউজান থানার সেকেন্ড অফিসার উপপরিদর্শক অজয় দেব শীল বলেন, ‘এক ব্যক্তির ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে’। হত্যা করে মরদেহ ঝুলিয়ে দেওয়া হয়ে স্ত্রীর এমন অভিযোগ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘মৃত্যুর সঠিক কারণ জানার জন্য লাশ ময়নাতদন্তে জন্য মর্গে প্রেরণ করা হবে। উনার স্ত্রী যদি অভিযোগ দেন তাহলে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। দরজা লক করা ছিল না, কিন্তু লাগানো ছিল। চেয়ারের পাশে মাটি সাথে পা লাগোনো ছিল। যদি কেউ হত্যা করে থাকে অবশ্যই ময়নাতদন্তের রিপোর্টে জানা যাবে।’ প্রাথমিকভাবে মৃত্যুর কারণ নিয়ে তিনি কোন মন্তব্য করেননি।